বিজয়নগরে ভেঙ্গে প‌ড়ে‌ছে শতাধিক বছরের পুরনো  বটবৃক্ষ

চট্টগ্রাম, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সারাদেশ, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, 34 বার পড়া হয়েছে,

ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজয়নগর উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের রামপুর-রসুলপুর গ্রামে অলৌকিকভাবে কয়েকশ বছর পুরনো বটবৃক্ষ ধুমরে মুচড়ে ভেঙে গেছে। সরেজমিন, দেখা যায়, গত ১৯শে আগস্ট শনিবার মধ্য রাতে কোন প্রকার প্রাকৃতিক দুর্যোগ না থাকার পরও বট বৃক্ষটি উপড়ের মধ্যস্থল দিয়ে চার ভাগ বিভক্ত হয়ে পশ্চিম পাশের অংশটি নদীতে পড়ে যায়। বট বৃক্ষটি প্রায় কয়েক’শ বছরের পুরনো বলে স্থানীয়দের দাবি। বৃক্ষটির প্রায় ৫ বিঘা জমির উপর বিস্তৃত ছিল।বৃক্ষটির নিচে সনাতন ধর্মালম্বীদের শ্মশান ও পূজা মন্ডপ ছিল। সেখানে সনাতন ধর্মাম্বলীরা নিয়মিত পূজা অর্চনা করতেন। এই বৃক্ষের নিচে এলাকার লোকজন আশা পূরণ, রোগ মুক্তির আশায় খাবার ও মিষ্টি রেখে আসতেন। স্থানটি দেখতে নির্জন ও নীরব।

আশেপাশের লোকজন জানান, ঐদিন রাত ১২টা ৫ মিনিটে বিকট আওয়াজ হয় । এক পর্যায়ে গাছটিকে শিকড় সহ ভেঙ্গে প‌ড়ে যায় ।

ওই এলাকার স্থানীয় মামুন মিয়া বলেন, সেদিন মধ‌্য রা‌তে খুব আওয়াজ আমরা শুনে আমরা ক‌য়েকজন ঘটনাস্থ‌লে গি‌য়ে কিছু দে‌খি নাই । অ‌নে‌কে ভাব‌ছেন কোন অ‌লৌ‌কিক শ‌ক্তি বটবৃক্ষটিক ভেঙ্গে দি‌য়ে‌ছে ।

স্থানীয় বাসিন্দা  বাবুল মিয়া বলেন, সারা দিন গাছটি ভাল ছিল। রাতে কোন বৃষ্টি ঝড় বৃষ্টি ছিল না। সকালে উঠে আমারা দেখি গাছটি দুমড়ে মুছড়ে পড়ে আছে।

স্থানীয় একাধিক বাসিন্দার দাবী, গাছটির পাশ দিয়ে ব্যস্ততম রামপুর মনিপুর সড়ক। নিরব সময় গাছের নীচ দিয়ে যাতায়াত করার সময় অদ্ভুত চিৎকার চেঁচামেচি শোনা যেত। এতে পথচারীরা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে যাতায়াত করত।