কমলগঞ্জে দুই দিনের টানা বর্ষণে পাহাড়ি ঢলে ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার উপরে পাড়ি

সিলেট, 9 June 2020, 523 বার পড়া হয়েছে,

কাওছার আহমেদ কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা ও আশপাসের বিভিন্ন এলাকায় আজ কয়দিন ধরে প্রবল বর্ষনের কারনে ধলাই নদী অঞ্চলে বন্যার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। উজান থেকে নেমে আসা ভারতীয় পাহাড়ি ঢল ও গত দুদিনের প্রবল বর্ষণের ফলে ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার ২০ /২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এরই সাথে পাহাড় অধ্যুষিত কমলগঞ্জের সবগুলো পাহাড়ি ছড়ার পানিও বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। কমলগঞ্জে ধলাই নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধের বেশ কয়েকটি স্থান ঝূঁকিপূর্ণ অবস্হায় রয়েছে।ঝুঁকিপূর্ণ থাকার কারনে যেকোন সময় বাঁধ ভেঙ্গে বন্যায় পরিনত হতে পারে। নদী ভাঙ্গনের বিস্তৃর্ন জনপদে প্রবেশের সম্ভাবনা রয়েছে।আজ কিছু দিন ধরে থেমে থেমে কয়েক দফা ভারী বর্ষণ হলেও গতকাল রাতের টানা ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ায় ধলাই নদীর পানি দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সাথে উজানের ভারতীয় পাহাড়ি এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ায় কারনে বুধবার রাত থেকে ধলাই নদীর পানি বৃদ্ধি পেতে থাকে। বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় দেখাযায় ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।এছাড়াও কমলগঞ্জের লাঘাটাছড়া সহ বিভিন্ন পাহাড়ী ছড়ার পানিও বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানা যায়।এ বিষয়ে ভারতের ত্রিপুরার গণমাধ্যম কর্মীর সাথে কথা বললে জানা যায় ভারতের ত্রিপুরা ও আসাম অঞ্চলে গত দুদিন প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়েছে। এ বৃষ্টির পানি বাংলাদেশের সিলেট অঞ্চলের সুরমা, কুশিয়ারা, মনু, ধলাই ও খুয়াই নদী দিয়ে প্রবাহিত হবে। ফলে ধলাই নদীতে পানি আরও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
স্থানীয়ভাবে খোঁজ নিয়ে আরও জানা যায়, কমলগঞ্জের ইসলামপুর ইউনিয়ন থেকে রহিমপুর ইউনিয়ন পর্যন্ত ধলাই নদীর ৫৫ কি.মি. এলাকার মাঝে বেশ কিছু স্থানে প্রতিরক্ষা বাঁধটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্হায় রয়েছে। নদীতে আরও পানি বৃদ্ধি পেলে এসব ঝুঁকিপূর্ণ স্থানের বাঁধ ভেঙ্গে কমলগঞ্জে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। এ বিষয়ে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক বলেন, বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় ভানুগাছ রেলওয়ে স্টেশনের অদূরে ধলাই নদীর উপর রেল সেতু এলাকায় পানি বিপদ সীমার ১৯ দশমিক ৮৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরও বলেন, উপজেলা প্রশাসন কমলগঞ্জের নদ নদী ও ছড়ার দিকে সার্বক্ষণিক নজরদারি রাখছে।যেকোন প্রস্তুতি মোকাবেলায় প্রাশাসন প্রস্তুত রয়েছে।এ বিষয়ে মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শঙ্কর চক্রবর্তী বলেন, ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার ১০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।জেলার সকল নদনদীর উপর প্রাশাসন নজর রাখছে প্রশাসন।

Leave a Reply