বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন ভূঁইয়ার আত্ব পক্ষ সমর্থন, ডিলারের সাথে নেই তার সম্পর্ক

বিজয়নগর, 16 April 2020, 647 বার পড়া হয়েছে,

রাইট টাইমস ডেস্ক: বিজয়নগর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ১০ টাকা মূল্যের চাউলের বিষয়কে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের মাঝে যে ধারণা সৃষ্টি হয়েছে তা পরিষ্কার করার লক্ষ্যে বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া গতকাল সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তার কার্যালয়ে বলেন, খাদ্য অধিদপ্তর থেকে বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন দুইজন ডিলার নিয়োগ দেয়া হয় । যা আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পূর্ব থেকেই নিয়োগকৃত।  শাহীন ভূইঁয়া গুদাম থেকে ১৪বস্তা চাল নিয়ে জনমতে যে প্রশ্ন উঠেছে তা পরিষ্কার করার জন্য যে কথাটি বলতে, চাই খাদ্য অধিদপ্তরের নিয়োগ কৃত ডিলার কে খাদ্য অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। আমি চেয়ারম্যান হিসেবে অনেক সময় তদারকি করে থাকি । বর্তমানে যে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে তার সম্পূর্ণ বিষয় ডিলার দ্বায়বদ্ধ। এ বিষয় আমি কিংবা আমার পরিষদের না।  উক্ত বিষয়টিতে আমাকে জড়িয়ে আমার ভাবমূর্তি আমার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছেন একদল ষড়যন্ত্রকারী।  এ বিষয়ে  সবকিছুই জনগণ বুঝতে পারবে যখনই চালের প্র কৃত ঘটনাটি তদন্তের মাধ্যমে বেড়িয়ে আসবে । এখানে  আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করছে আগামী দিনে জনগণই আপনাদের ভাবমূর্তি উন্মোচন করবে। যারা আমাকে জড়াতে যাচ্ছে আমি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।