বিজয়নগর ডিলারের সরকারি চাল বহণ করে বিপাকে অটোচালক

বিজয়নগর, 16 April 2020, 193 বার পড়া হয়েছে,

বিজয়নগর সংবাদাতা: ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজয়নগরে এক অটোরিক্সা চালকের আর্তনাত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। মামুন খান নামের সেই অটোরিক্সার চালক তার অটোরিকশা ফিরে পেতে ফেসবুকে ভিডিও ছেড়েছেন। সে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। তার ৩ মিনিট ১৬ সেকেন্ডের ভিডিওতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্যের দৃষ্টি আর্কষণ করা হয়। ভাইরাল হওয়া সে ভিডিও তে তিনি এমপি মহোদয়ের প্রতি হাত জোড় করে দাঁড়িয়ে বলেন, গত ১২ এপ্রিল চালের ডিলার শাহীন ভুঁইয়ার ফোনে সাড়া দিয়ে উপজেলার ৮ নং চেয়ারম্যানের বাড়িতে ১৪ বস্তা চাল দিয়ে আসতে বলেন। তখন চাল গুলো গাড়ি তুলে নিয়ে যাই। নিয়ে যাওয়ার সময় পথের মধ্যে তাকে জনগণ আটক করেন। তখন সে চাল গুলো চেয়ারম্যানের বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছেন এমনটা জানিয়ে ছিলেন ড্রাইভার মামুন। তখন চাল সহ অটোরিক্সাটি এলাকার লোকদের সহযোগিতায় পুলিশ বিজয়নগর থানায় নিকট নিয়ে যায়। তখন ড্রাইভার মামুন ঘটনাটি খুলে বলেন। তারপরও তার অটোরিক্সাটি আটকে রেখেছে মর্মে সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি আঁকুতি জানিয়ে ভিডিও ছেড়েছেন। ভিডিওতে তিনি দিনমজুর, অসহায় হিসেবে তার একমাত্র আয়ের উৎস এই অটোরিক্সাটি উল্লেখ করেন। এর মাধ্যমে উপার্জন করে সংসার চলে তার। অটোরিক্সা উদ্ধারে দাবি জানিয়ে এমপি মহোদয়ের প্রতি তার আর্তনাদ জানিয়েছেন। বর্তমানে সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। উল্লেখ্য যে, গত রোববার সকাল ১১টার সময় উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের দুলালপুর হালিম চৌমুহনী এলাকায় রাস্তা থেকে ১৪বস্তা সরকারি চাল আটক করা হয়। উপজেলার বিষ্ণুপুর রানওয়ে বাজারের ডিলার মো: শাহিন ভূইয়ার গোডাউন থেকে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা দিয়ে পাচারকালে দুলালপুর হালিম চৌমুহনী এলাকায় স্থানীয়দের হাতে ১৪ বস্তা চাল আটক করা হয়। স্থানীদের খবর পেয়ে এলাকার দুইজন ইউপি সদস্য ও কবি তাবরীজ সরকার ঘটনার স্থলে উপস্থিত হয়। সেখানে চালককে জিজ্ঞাসা করলে অটোরিক্সা ড্রাইভার বলেন, ডিলার শাহিন ভূইয়া চাউল বিষ্ণপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিনের বাড়িতে রেখে আসতে পাঠিয়েছেন।পরে এ বিষয়ে গত রোববার মধ্যরাতে বিজয়নগর থানায় উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নূর আলী বাদী হয়ে একটি মামলাটি দায়ের করেন। এতে আসামী করা হয়েছে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির নিযুক্ত ডিলার ও উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহীন ভূইয়াকে। এবিষয়ে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নূর আলী বলেন, চাল পাচারের ঘটনায় মামলা দায়ের করেছি। আমরা যেহেতু ডিলারকে চিনি তাই ডিলারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি। যদি ইউপি চেয়ারম্যান জড়িত থাকেন, পুলিশ তদন্ত করে তাকে যুক্ত করবেন।