নাসিরনগরে মন্দিরের জায়গা জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা

নাসিরনগর, 9 February 2020, 209 বার পড়া হয়েছে,

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নে সাহাজী বাড়ি দুর্গামন্দিরের জায়গা জোর পূর্ব দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে মন্দিরের ৭৬ শতাংশ একটি পুকুরের মালিকানা নিয়ে মন্দির পরিচালনা কমিটির সঙ্গে কয়েক বছর ধরে পার্শ্ববতী সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউড়া গ্রামের সাবেক ইউ.পি চেয়ারম্যান কুতুব উদ্দিন ভূইয়ার সাথে বিরুদ্ধ চলে আসছে। এ নিয়ে মহামান্য উচ্চ আদালতে মামলা মোকদ্দমা ও চলমান রয়েছে। পুকুরটি দীর্ঘদির যাবৎ মন্দির কমিটির দখলে রয়েছে। উক্ত পুকুরের আয় থেকে মন্দিরের বিভিন্ন পূজা অর্চনার কাজে ব্যয় করা হয় বলে জানিয়েছে মন্দির কমিটির লোকজন।
সম্প্রতি কুতুব উদ্দিন দাতা সেজে দলিল লিখক মতিউর রহমানের মাধ্যমে চাতলপাড় ইউনিয়নের বায়তুল ও হূমায়ুনের নিকট জায়গাটি বিক্রি করে নাসিরনগর সাব রেজিষ্ট্রী অফিসে দলিল করতে যায়। এ খবর জানতে পেয়ে মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিনয় রায় ও অন্যান্যরা তাৎক্ষনিক মামলার কাগজপত্র নিয়ে সাব রেজিষ্ট্রী অফিসে উপস্থিত হয়ে কাগজপত্র প্রদর্শন করে। উচ্চ আদালতের মামলার কাগজ দেখতে পেয়ে তাৎক্ষনিক সাব রেজিষ্ট্রার মিজহারুল ইসলাম উজ্জ্বল দলিলটি সম্পাদান বন্ধ করে দেন। পরে তারা দলিলটি বন্ধ রাখার জন্য দলিল লিখক সমিতির সভাপতি সম্পাদক বরাবর লিখিত অভিযোগ ও করেন।
মন্দির পরিচালনা কমিটি সভাপতি চাতলপাড় ইউ.পি সদস্য বিনয় রায় জানায়, জায়গাটি নিয়ে অনেক দিন ধরে মঞ্জু ভূইয়ার ছেলেরা তাকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। তাছাড়া ও বেশ কিছু দিন পূর্বে রাত সোয়া বারটার দিকে ইউ.পি সদস্য বিনয় রায়কে তার নিজ বাড়িতে পুড়িয়া হত্যার চেষ্টা করে। এ বিষয়ে দলিল লিখক মতিউর রহমান ও কুতুব উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে তারা মুখ খুলতে রাজি হয়নি।