কসবায় মায়ের অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতে মাদকাসক্ত ছেলের ৬ মাসের কারাদন্ড

কসবা, 15 January 2020, 251 বার পড়া হয়েছে,

মোঃ রোবেল আহমেদ, কসবা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥
ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবায় নাজির হোসেন ভূইয়া (৩৫) নামের এক মাদকাসক্তকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। গতাকাল মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে তার মায়ের অভিযোগে এবং গাঁজা সেবন ও বহন করার দায়ে নজির হোসেনকে এই কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। আদালত পরিচালনা করেন কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্যাট মাসুদ উল আলম। কারাদন্ড প্রাপ্ত নজির হোসেন কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের নেমতাবাদ গ্রামের সফিকুল ইসলাম ভূইয়ার ছেলে।
ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, নজির হোসেন ভূইয়া মাদকাসক্ত। সে মাদক সেবন করে পরিবারের লোকজনের উপর অত্যাচার চালায়। টাকা পয়সা না দিলে বাড়ি-ঘরের জিনিসপত্র ভাংচুর করে। তার অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে নজির হোসেনের মা সাহেরা খাতুন কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলমের নিকট লিখিত আবেদন করেন। মঙ্গলবার দুপুরে আবারও নজির হোসেন গাঁজা সেবন করে উগ্র আচরন করছে এমন খবর পেয়ে কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাসুদ উল আলম অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেন। এ সময় তাঁর কাছে গাঁজা পাওয়া যায়। ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সে তার সকল দোষ স্বীকার করে। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে নজির হোসেন ভূইয়াকে ৬ মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়। মঙ্গলবার বিকালে তাকে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া জেলহাজতে পাঠিয়েছেন পুলিশ।
নজির হোসেন ভূইয়ার মা সাহেরা খাতুন বলেন, তাঁর ছেলে মাদকাসক্ত। মাদকের টাকার জন্য পরিবারের লোকজনের উপর আক্রমণ চালায়। বাড়ি-ঘরও ভাংচুর করে। তার অত্যাচারে অতিষ্ট পরিবারের লোকজন। তাই নিরুপায় হয়ে তার অত্যাচার থেকে বাঁচতে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন তিনি।
কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাসুদ উল আলম বলেন, তার মায়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাদকাসক্ত নজির হোসেন ভূইয়াকে আটক করা হয় । মাদক সেবন করে পরিবারের উপর অত্যাচার চালানো সহ মাদক সেবন এবং সাথে গাঁজা রাখার দায়ে তাকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। পরে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।