কসবা টি.আলী কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানবন্ধন

কসবা, 7 January 2020, 1242 বার পড়া হয়েছে,

রুবেল আহমেদ, কসবা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি ॥
ব্রা‏‏হ্মণবাড়িয়ার কসবা টি.আলী কলেজের সাবেক সভাপতি সাদেক আলীকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগন। তাঁর অনিয়ম ও দুর্নীতির হাত থেকে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিকে বাঁচাতে গতকাল মঙ্গলবার ( ৭ জানুয়ারি) দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষক পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ একে আজাদের সভাপতিত্বে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এর আগে গত রোববার ৫ জানুয়ারি একই দাবীতে শিক্ষক ও কর্মচারীরা কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রাশেদুল কাউছার ভূইয়া জীবনের কাছে স্মারকলিপি প্রদান সহ সংবাদ সম্মেলন করেন।
মানববন্ধন কর্মসূচীতে ভ’ক্তভোগী শিক্ষকদের অভিযোগ, জালিয়াতির মাধ্যমে সভাপতি হওয়া সাদেক আলীকে গত বছরের ২৮ নভেম্বর০১৯ এর ৭ নং ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে কসবা টি.আলী কলেজের এডহক কমিটির বর্তমান সভাপতি সাদেক আলীকে অব্যা ৪৫৯৫৪ নং স্বারকের আদেশে উল্লেখ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গভর্নিং বডি গঠন সংক্রান্ত সংশোধন সংবিধি ২হতি দিয়ে আগামী ১৯ এপ্রিল ২০২০ মেয়াদ পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়। সেই আদেশটি বাতিল করে পুনরায় সভাপতি হওয়ার চেষ্টা করছেন সাদেক আলী। এতে করে ছাত্র-শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে আতংক ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। সাদেক আলীর সভাপতির দায়িত্ব পালনকালে কলেজের স্বার্থের পরিপন্থী কার্যকলাপ সহ অনেক অনিয়ম সংগঠিত হয়েছে। তিনি এবং সাবেক অধ্যক্ষের যোগসাজসে কলেজের বিপুল পরিমান অর্থ লোপাট হয়েছে। যাহা অভ্যন্তরীন অডিট কমিটির প্রতিবেদনে প্রতিয়মান হয়েছে।এ ছাড়াও কলেজের অনেক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তাঁর কাছে থাকায় অবসরে যাওয়া কয়েকজন শিক্ষকও হয়রানীর শিকার। সম্প্রতি সাদেক আলী কে পরিবর্তন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সভাপতির দায়িত্ব প্রদান করায় বিগত দেড় বছরে কলেজের অনেক উন্নতি ঘটেছে। সম্প্রতি কলেজের শিক্ষকগন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানতে পেরেছেন আবারও সাবেক সভাপতি সাদেক আলী পুনরায় কলেজের বর্তমান এডহক কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করার জন্য তদবীর করছেন। এতে শিক্ষকদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। উর্ধতন কর্র্তৃপক্ষের নিকট তাদের দাবী; সাদেক আলী যাতে করে পুনরায় এই কলেজের সভাপতি হতে না পারে। সে পুনরায় সভাপতি হলে তাদের উপর নেমে আসবে অবিচারের খঁড়গ। বিগত সময়ের মতো দুর্নীতি এবং লোপাট চালাবে কলেজটিতে।