রাজধানীর উত্তরখানের ময়নারটেক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের (ছেলে ও মেয়ে) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতরা হলেন— মা জাহানারা খাতুন মুক্তা (৪৭), ছেলে মুহিব হাসান (২৮) এবং প্রতিবন্ধী

মেয়ে তাসফিয়া সুলতানা মিম (২০)।

তাদের বাবা মৃত ইকবাল হোসেন।

উত্তরখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হেলাল উদ্দিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ময়নারটেক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি হেলাল বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই নিহতদের বাসার দরজা জানালা সব বন্ধ ছিল। স্থানীয়দের সন্দেহ হওয়ায় তারা পুলিশে খবর দেয়। আমরা ঘটনাস্থলে আছি, কিভাবে এই ঘটনা ঘটলো তা খতিয়ে দেখছি। এখনই এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাতে পারছি না।

অন্যদিকে উত্তরা জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হাফিজুর রহমান বলেন, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে দেড় মাস আগে পরিবারটি এই বাসা ভাড়া নিয়েছিল। কয়েকদিন ধরে বাসাটির দরজা জানালা সব ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। পরে স্থানীয়রা সন্দেহের বশে বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর থেকে তিনটি মরদেহ উদ্ধার করে।

তিনি বলেন, ওই ঘর থেকে একটি চিরকুট মিলেছে, যাতে লেখা ‘আমাদের মৃত্যুর জন্য ভাগ্য দায়ী।’ আসলে ঘটনাটি কি? কিভাবে তাদের মৃত্যু হলো সব কিছুই তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে কোন কিছুই স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

"/>

রাজধানীর উত্তরখানে একই পরিবারের ৩ জনের লাশ উদ্ধার

জাতীয়, 13 May 2019, 277 বার পড়া হয়েছে,


রাজধানীর উত্তরখানের ময়নারটেক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের (ছেলে ও মেয়ে) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতরা হলেন— মা জাহানারা খাতুন মুক্তা (৪৭), ছেলে মুহিব হাসান (২৮) এবং প্রতিবন্ধী

মেয়ে তাসফিয়া সুলতানা মিম (২০)।

তাদের বাবা মৃত ইকবাল হোসেন।

উত্তরখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হেলাল উদ্দিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ময়নারটেক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি হেলাল বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই নিহতদের বাসার দরজা জানালা সব বন্ধ ছিল। স্থানীয়দের সন্দেহ হওয়ায় তারা পুলিশে খবর দেয়। আমরা ঘটনাস্থলে আছি, কিভাবে এই ঘটনা ঘটলো তা খতিয়ে দেখছি। এখনই এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাতে পারছি না।

অন্যদিকে উত্তরা জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হাফিজুর রহমান বলেন, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে দেড় মাস আগে পরিবারটি এই বাসা ভাড়া নিয়েছিল। কয়েকদিন ধরে বাসাটির দরজা জানালা সব ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। পরে স্থানীয়রা সন্দেহের বশে বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর থেকে তিনটি মরদেহ উদ্ধার করে।

তিনি বলেন, ওই ঘর থেকে একটি চিরকুট মিলেছে, যাতে লেখা ‘আমাদের মৃত্যুর জন্য ভাগ্য দায়ী।’ আসলে ঘটনাটি কি? কিভাবে তাদের মৃত্যু হলো সব কিছুই তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে কোন কিছুই স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।