উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মৃনাল চৌধুরী লিটনকে ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই উপজেলাবাসী

বিজয়নগর, 16 March 2019, 364 বার পড়া হয়েছে,

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়নগর উপজেলার ৩নং ইছাপুরা ইউনিয়নের বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী মির্জাপুর গ্রামের প্রয়াত ভূপেষ চৌধুরীর ছেলে এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেললা প্রেসক্লাবে সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পীর ছোট ভাই প্রেসক্লাব বিজয়নগর এর সভাপতি মৃনাল চৌধুরী লিটনকে বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই উপজেলাবাসী।

অসাধারণ মানবিক গুনাবলীর অধিকারী,বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সাংবাদিক, সৎ, যোগ্য এবং কর্মীবান্ধব নীরব বিপ্লবী নেতা মৃনাল চৌধুরী লিটন । ছাত্রজীবন থেকেই রাজনৈতিক অঙ্গণে তাঁর বিচরণ।বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে আওয়ামী লীগে দুঃসময়ে দলের জন্য নিবেদিত প্রান মৃনাল চৌধুরী নানামুখি হয়রানী ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মৃনাল চৌধুরী লিটন আওয়ামীলীগ থেকে ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন এমন সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে সাম্প্রতিক সময়ে তিনি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছেন।

বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে আলোচিত নাম মৃনাল চৌধুরী লিটন । উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তাঁকে দলীয় সমর্থন দেয়া হোক এমন দাবি এখন বিজয় উপজেলা বাসীর।

আগামী ১৮ জুন অনুষ্ঠিতব্য বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি মৃনাল চৌধুরী লিটনকে উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় বিজয়নগরবাসী।তিনি আলোচনার শীর্ষে এখন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসংখ্য স্ট্যাটাস দিয়ে তার পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন ভক্ত-শুভাকাঙ্খিরা।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে-পরে মৃনাল চৌধুরী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে দিনরাত কাজ করেছেন। সেই সঙ্গে সাংবাদিক হিসাবে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড – উপজেবাসির সবার মাঝে তুলে ধরছেন।

মৃনাল চৌধুরী লিটন সফল সাবেক ছাত্রনেতা, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সাংবাদিক হিসেবে সবার কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীসহ বিজয়নগরবাসীও তাকে উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চান।

বিজয়নগর উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চৌধুরী বলেন, আমাদের সবার প্রত্যাশা মৃনাল চৌধুরী লিটন এবার উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন। উনি ৩নং ইছাপুরা ইউনিয়নের চৌধুরী পরিবারের কৃতিসন্তান। শুধু চৌধুরী পরিবারের সন্তান বলে নয়, রাজনীতিতে সক্রিয়তা,সোনার বাংলা গড়ার স্বপক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তারুণ্য নিভর্রতা সর্বোপরি বিজয়নগর উপজেলার আপামর জনসাধারণের কাছে একজন প্রিয় সাবেক তোখড় ছাত্রনেতা হিসেবে উনার যথাযোগ্য মূল্যায়ন হোক,সেটাই আমরা বিজয়নগর বাসির প্রত্যাশা।

মৃনাল চৌধুরী লিটন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্ত হন। মৃনাল চৌধুরী লিটন ১৯৮৮ সালে দাউদ পুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞানে এসএসসি, ১৯৯০ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারী কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ১৯৯২ সালে বিএসএস (বি.এ) পাশ করেন।

উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মৃনাল চৌধুরী লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধু আদর্শকে বুকে লালন করে সততা ও নিষ্ঠার সাথে বিজয়নগর উপজেলার অসহায় ও অবহেলিত মানুষের সেবা করতে চাই।

নির্বাচনে প্রস্তুতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য দীর্ঘদিন ধরে আমি আমার মতো করে কর্মকান্ড চালিয়ে আসছি। দলের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করছি। পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকাতে জনসেবামূলক কর্মকান্ডেও অংশগ্রহণ করছি।
তিনি আরো বলেন আগামী ১৮ জুন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামিলীগ সভাপতি মাননীয় সাংসদ র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এবং বিজয়নগরবাসি আমাকে সেই সুযোগ দেবেন বলে আমি আশাবাদী।